Home / আজকের সংবাদ / করপোরেট কর কমানোয় ডিএসইর অভিনন্দন

করপোরেট কর কমানোয় ডিএসইর অভিনন্দন

ডেইলি শেয়ারবাজার রিপোর্ট: প্রস্তাবিত বাজেটে (২০২১-২০২২) করপোরেট কর কমানোর সিদ্ধান্ত নেওয়ায় সরকার তথা অর্থমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানিয়েছে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ লিমিটেড।

ডিএসই’র পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, জীবন-জীবিকায় প্রাধান্য দিয়ে সুদৃঢ় আগামীর পথে বাংলাদেশ” শিরোনামে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রত্যক্ষ দিক-নির্দেশনায় বিনিয়োগ বৃদ্ধি, কর্মসংস্থান সষ্টি এবং অর্থনীতিকে গতিশীল করতে যে সুদূর প্রসারী পরিকল্পনা নিয়ে মাননীয় অর্থমন্ত্রী জনাব আ হ ম মুস্তফা কামাল, এফসিএ, এমপি মহান জাতীয় সংসদে ২০২১-২২ অর্থবছরের জন্য ৬ লাখ ৩ হাজার ৬ শত ৮১ কোটি টাকার বাজেট পেশ করেছেন, তার জন্য ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ লিমিটেড (ডিএসই) আন্তরিক অভিনন্দন জানাচ্ছে।

উক্ত বাজেট স্বাধীন বাংলাদেশের ৫০ তম বাজেট এবং বর্তমান সরকারের তৃতীয় মেয়াদের তৃতীয় বাজেট ও আওয়ামী লীগ সরকারের টানা ১৩ তম বাজেট। এই বাজেট বর্তমান অর্থমন্ত্রীর ততীয় বাজেট। মাননীয় অর্থমন্ত্রীর বাজেট উপস্থাপনের পরপরই ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের পরিচালনা পর্ষদের সভায় প্রস্তাবিত বাজেট নিয়ে আলোচনা করা হয়।

ডিএসই মনে করে, এই বাজেট ব্যবসাবান্ধব ও বাংলাদেশের পুঁজিবাজারের উন্নয়নমুখী বাজেট। দেশের অর্থনীতিকে গতিশীল করতে প্রস্তাবিত বাজেটে সরকারের অর্জন ও উদ্ভূত বর্তমান পরিস্থিতির প্রেক্ষাপটে টেকসই ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ে তোলার লক্ষ্যে ২০২১-২২ অর্থবছরে উন্নয়নমূলক ও ব্যবসাবান্ধব যে সু-পরিকল্পিত কর্মপন্থা ও ব্যবস্থাপনা কৌশল বাজেটে প্রস্তাব করা হয়েছে, সে জন্য ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ মাননীয় অর্থমন্ত্রীর নিকট কৃতজ্ঞ। পুঁজিবাজারের উন্নয়ন এবং বিনিয়োগকারীদের স্বার্থে ২০২১-২২ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে কর্পোরেট করহার আরও কমিয়ে তালিকাভুক্ত কোম্পানির জন্য ২৫% এর স্থলে ২২.৫০% করায় ডিএসই অভিনন্দন জানাচ্ছে।

কর্পোরেট করহার কমানোর ফলে বাংলাদেশের বৃহৎ এবং স্বনামধন্য কোম্পানিগুলো পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হতে আগ্রহী হবে। এছাড়াও সরকার পুঁজিবাজারকে আন্তর্জাতিককরণের লক্ষ্যে নানাবিধ সংস্কারমূলক পদক্ষেপ গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করছে। বিনিয়োগকারীদের প্রত্যাশা অনুযায়ী প্রস্তাবিত বাজেটে বাংলাদেশের পুঁজিবাজারকে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে নিয়ে আসার জন্য আধুনিক পুঁজিবাজারের বিভিন্ন ইন্সট্রমেন্ট যথা: ট্রেজারি বন্ড, সুকুক, ডেরিভেটিভ, অপশন এর লেনদেন চালু করা, এসএমই ও এটিবি বোর্ড চালু করা, ইটিএফ চালু করা, ওপেন ইন্ড মিউচুয়্যাল ফান্ড তালিকাভুক্ত করা, পুঁজিবাজারের সহায়ক ইকোসিস্টেম ও সার্বিক সুযোগ সুবিধার উন্নয়ন এবং স্টক এক্সচেঞ্জকে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে পরিণত করার জন্য যে সুদৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন এ জন্য ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ মাননীয় অর্থমন্ত্রীকে আবারো অভিনন্দন জানাচ্ছে। এছাড়াও, মাননীয় অর্থমন্ত্রী তার বাজেট বক্ততায় স্বাস্থ্য ও কোভিড-১৯ মহামারী মোকাবেলা, কষি, খাদ্য নিরাপত্তা, কর্মসংস্থান সষ্ট, দারিদ্র দরীকরণ, পল্লী উন্নয়ন, অন্যান্য প্রয়োজনীয় অবকাঠামো নির্মাণ, ডিজিটাল বাংলাদেশ ও নারী ক্ষমতায়নের উপর বিশেষ গুরুত্বারোপ করেছেন। দীর্ঘমেয়াদী মুলধন সংগ্রহের অন্যতম মাধ্যম হলো দেশের পুঁজিবাজার। তাই “জীবন-জীবিকায় প্রাধান্য দিয়ে সুদৃঢ় আগামীর পথে বাংলাদেশ” শীর্ষক প্রস্তাবিত বাজেটে দেশের পুঁজিবাজার সরকারের কাঙ্খিত লক্ষ্যে এগিয়ে যাবে এই প্রত্যাশায় ডিএসই মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে আবারও কৃতজ্ঞচিত্তে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করছে।

 

ডেইলি শেয়ারবাজার ডটকম/নি.

Check Also

বিও হিসাবে রাখা অর্থের সুদ পাবেন বিনিয়োগকারীরা

ডেইলি শেয়ারবাজার রিপোর্ট: সিকিউরিটিজ হাউজের বিও হিসাবে রাখা অর্থের সুদ পাবেন বিনিয়োগকারীরা। পুঁজিবাজারে বিনিয়োগকারীদের বিও …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *