Home / আইপিও / ক্ষতিগ্রস্তদের আইপিও কোটার মেয়াদ শেষ

ক্ষতিগ্রস্তদের আইপিও কোটার মেয়াদ শেষ

ডেইলি শেয়ারবাজার রিপোর্ট: গেল ১০ বছর ধরে প্রাথমিক গণ প্রস্তাবের (আইপিও) আবেদনে ক্ষতিগ্রস্ত ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীরা ২০ শতাংশ কোটা সুবিধা ভোগ করে আসছেন। প্রতিবছরই অর্থমন্ত্রনালয় থেকে আইপিওতে ক্ষতিগ্রস্ত ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের কোটা রাখার মেয়াদ বাড়ানো হচ্ছিল। কিন্তু এ বছর ক্ষতিগ্রস্তদের আইপিও কোটার মেয়াদ শেষ হলেও আর বাড়ানো হয়নি। তাই পরবর্তী আইপিও থেকে ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের জন্য আলাদা করে ক্ষতিগ্রস্ত কোটার ব্যবস্থা রাখা হচ্ছে না।

এ ব্যাপারে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মো: রেজাউল করিম ডেইলি শেয়ারবাজার ডটকমকে জানান, আইপিওতে ক্ষতিগ্রস্ত ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের জন্য সংরক্ষিত ২০ শতাংশ কোটার মেয়াদ জুন,২০২১ তারিখে শেষ হয়ে গেছে। এখনও পর্যন্ত এই কোটার মেয়াদ আরো বাড়ানো হবে কিনা সে বিষয়ে মন্ত্রনালয় থেকে কোন চিঠি আমরা পাইনি। যেহেতু কোন চিঠি আসেনি তাই এর মেয়াদ আর বাড়ানো হচ্ছে না। তাই পরবর্তী আইপিওতে ক্ষতিগ্রস্ত ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের কোটা সংরক্ষণের ব্যবস্থা রাখা হবে কিনা সে বিষয়ে কমিশনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

উল্লেখ্য, ২০১১ সালের পুঁজিবাজারে ভয়াবহ ধসে পুঁজি হারিয়ে নিঃস্ব হয়েছে লাখ লাখ বিনিয়োগকারী। পরবর্তীতে বিনিয়োগকারীদের আন্দোলনের মুখে পুঁজিবাজারের বড় ধরনের সংস্কার করে সরকার। এর মধ্যে ২০১১ সালের ২৩ নভেম্বর ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের ক্ষতি পুষিয়ে দিতে প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা করে সরকার। প্রণোদনার অংশ হিসেবে মন্ত্রণালয়ের ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ থেকে ক্ষতিগ্রস্থ বিনিয়োগকারীদের জন্য আইপিওতে ২০ শতাংশ কোটায় আবেদন করার জন্য ১৮ মাস অর্থাৎ ২০১২ সালের ১ জুলাই থেকে ২০১৩ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত সময় বেঁধে দেয়। এরপর থেকে পুঁজিবাজারে ক্ষতিগ্রস্তদের বিনিয়োগকারীদের লোকসান সমন্বয়ের কথা চিন্তা করে প্রতিবছরই এর মেয়াদ বাড়িয়ে দেয় অর্থমন্ত্রণালয়। সেই ধারাবাহিকতায় ৩০ জুন, ২০২১ তারিখে ক্ষতিগ্রস্ত ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের কোটার মেয়াদ শেষ হয়েছে।

 

ডেইলি শেয়ারবাজার ডটকম/মাজ./নি

Check Also

অর্থ উত্তোলনের অনুমোদন পেল কৃষিবিদ ফিড

ডেইলি শেয়ারবাজার রিপোর্ট: পুঁঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) কৃষিবিদ ফিড লিমিটেডকে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *