Home / অন্যান্য / বিশ্বজিৎ হত্যা মামলার সাজাপ্রাপ্ত আসামি গ্রেফতার

বিশ্বজিৎ হত্যা মামলার সাজাপ্রাপ্ত আসামি গ্রেফতার

ডেইলি শেয়ারবাজার ডেস্ক: আলোচিত বিশ্বজিৎ দাস হত্যা মামলার যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামি কামরুল হাসানকে ৩২ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর থেকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। সোমবার গ্রেফতারের পর তাকে থানায় সোর্পদ করা হয়েছে।
কামরুল হাসানের বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর পৌর সদরের নারায়ণপুর মধ্যপড়া গ্রামে। তার বাবার নাম আবদুল কাইয়ুম।

নবীনগর থানার ওসি আমিনুর রশিদ বলেন, বিশ্বজিৎ হত্যা মামলায় কামরুল হাসানের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছিলেন আদালত। সোমবার অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

২০১২ সালের ৯ ডিসেম্বর বিরোধী দলের অবরোধ কর্মসূচি চলাকালে বাহাদুর শাহ পার্কের কাছে পথচারী বিশ্বজিৎ দাসকে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের কর্মীরা নির্মমভাবে পেটান ও কোপান।

বাঁচার জন্য দৌড় দিলে তিনি শাঁখারীবাজারের রাস্তার মুখে পড়ে যান। রিকশাচালক রিপন তাকে রিকশায় তুলে মিটফোর্ড হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসক বিশ্বজিৎকে মৃত ঘোষণা করেন। ঘটনার সময় বিশ্বজিৎ লক্ষ্মীবাজারের বাসা থেকে শাঁখারীবাজারে নিজের দোকানে যাচ্ছিলেন।

বিশ্বজিৎ শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার ভোজেশ্বর গ্রামের দাসপাড়া মহল্লার বাসিন্দা অনন্ত দাসের ছেলে। এ ঘটনায় ওই দিনই সূত্রাপুর থানায় মামলা হয়। মামলাটি পরে দ্রুতবিচার ট্রাইব্যুনালে স্থানান্তর করা হয়।

এরপর ২০১৩ সালের ৮ ডিসেম্বর দ্রুতবিচার ট্রাইব্যুনাল-৪-এর বিচারক এবিএম নিজামুল হক মামলায় রায় দেন। রায়ে ২১ আসামির মধ্যে ৮ জনকে মৃত্যুদণ্ড ও ১৩ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

নিম্ন আদালতে আদেশের বিরুদ্ধে আপিল করা হলে মৃত্যুদণ্ড পাওয়া আট আসামির মধ্যে দুজনের মৃত্যুদণ্ড বহাল, চারজনের মৃত্যুদণ্ড পরিবর্তন করে যাবজ্জীবন এবং অপর দুজনকে খালাস দিয়ে ২০১৭ সালের ৬ আগস্ট রায় দেন হাইকোর্ট। এছাড়া যাবজ্জীবন কারাদণ্ড পাওয়া ১৩ আসামির মধ্যে যে দুজন আপিল করেন, তারা খালাস পেয়েছিলেন।

ডেইলি শেয়ারবাজার ডটকম/এটি.

Check Also

জীবননগরে গলা কাটা লাশ উদ্ধার

ডেইলি শেয়ারবাজার ডেস্ক: আলেয়া বেগম নামে একজন নারী নিজেই নিজের গলা কেটে আত্মহত্যা করেছেন বলে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *